পিএমইন্ডিয়া

অনুসন্ধান
  • ডঃ মনমোহন সিং

    ডঃ মনমোহন সিং

    ২০০৪, ২২ মে থেকে ২০১৪, ২৬ মে

    ভারতের চতুর্দশ প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিং’কে সঠিকভাবেই চিন্তানায়ক ও পণ্ডিত ব্যক্তি বলা হয়। তাঁর পরিশ্রম এবং কাজের প্রতি জ্ঞানীর দৃষ্টিভঙ্গীর জন্য তিনি বিশেষভাবে শ্রদ্ধাভাজন হয়েছেন। এছাড়া, তাঁর সাহচর্য ও সাধাসিধে ধরণের মানুষ হওয়ার প্রবণতা ডঃ সিং – এর পরিচিতি অনেকাংশে বাড়িয়ে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ১৯৩২ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর অবিভক্ত ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী

    শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী

    ১৯৯৮, ১৯ মার্চ থেকে ২২ মে ২০০৪

    জননেতা এবং স্থিতপ্রজ্ঞ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী ১৯৯৯ সালের ১৩ অক্টোবর পর পর দ্বিতীয়বারের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বভার নেন। জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট নামে এক নতুন কোয়ালিশন সরকারের প্রধান হিসাবে তিনি এই পদে নির্বাচিত হন। এর আগে, ১৯৯৬ সালেও স্বল্প সময়ের জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর পর তিনিই প্রথম ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী ইন্দ্র কুমার গুজরাল

    শ্রী ইন্দ্র কুমার গুজরাল

    ১৯৯৭, ২১ এপ্রিল থেকে ১৯৯৮, ১৯ মার্চ

    শ্রী ইন্দ্র কুমার গুজরাল ১৯৯৭ সালের ২১ এপ্রিল,- সোমবার ভারতের দ্বাদশ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন। প্রয়াত অবতার নারায়ণ গুজরাল এবং প্রয়াত পুষ্পা গুজরালের সন্তান ইন্দ্র কুমার এম.এ.; বি.কম.; পি.এইচ.ডি. এবং ডি. লিট। ১৯১৯ সালের ৪ ডিসেম্বর অবিভক্ত পাঞ্জাবের ঝিলামে তাঁর জন্ম হয়। ১৯৪৫ সালের ২৬ মে তাঁর সঙ্গে শ্রীমতী শীলা গুজরালের ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • এইচ.ডি. দেবেগৌড়া

    এইচ.ডি. দেবেগৌড়া

    ১৯৯৬, ১ জুন থেকে ১৯৯৭, ২১ এপ্রিল

    কর্ণাটকের হাসান জেলার হোলেনারাসিপুরা তালুকের হারাদানাহাল্লি গ্রামে ১৯৩৩ সালের ১৮ মে শ্রী এইচ.ডি. দেবেগৌড়া জন্মগ্রহণ করেন। তিনি দেশের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে এক নিবেদিতপ্রাণ যোদ্ধা এবং ভারতের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের এক গুণমুগ্ধ ব্যক্তিত্ব। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং – এ ডিপ্লোমাপ্রাপ্ত শ্রী দেবেগৌড়া মাত্র ২০ বছর বয়সে রাজনীতিতে যোগ দেন। তাঁর শিক্ষা শেষ হওয়ার পর ১৯৫৩ ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী

    শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী

    ১৯৯৬, ১৬ মে থেকে ১৯৯৬, ১ জুন

    জননেতা এবং স্থিতপ্রজ্ঞ রাজনৈতিক শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী ১৯৯৯ সালের ১৩ অক্টোবর পর পর দ্বিতীয়বারের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বভার নেন। জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট নামে এক নতুন কোয়ালিশন সরকারের প্রধান হিসাবে তিনি এই পদে নির্বাচিত হন। এর আগে, ১৯৯৬ সালেও স্বল্প সময়ের জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর পর তিনিই প্রথম প্রধানমন্ত্রী ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • পি.ভি. নরসীমা রাও

    পি.ভি. নরসীমা রাও

    ১৯৯১, ২১ জুন থেকে ১৯৯৬, ১৬ মে

    শ্রী পি. রঙ্গারাও – এর পুত্র শ্রী পি.ভি. নরসীমা রাও ১৯২১ সালের ২৮ জুন করিমনগরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি হায়দ্রাবাদের ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, বোম্বাই বিশ্ববিদ্যালয় এবং নাগপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন। বিপত্নীক শ্রী নরসীমা রাও তিন পুত্র এবং পাঁচ কন্যার জনক। কৃষক এবং পেশাদার আইনজীবী শ্রী রাও রাজনীতিতে যোগ দিয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন ছিলেন। ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী চন্দ্র শেখর

    শ্রী চন্দ্র শেখর

    ১৯৯০, ১০ নভেম্বর থেকে ১৯৯১, ২১ জুন

    শ্রী চন্দ্র শেখরের জন্ম ১৯২৭ সালের ১ জুলাই উত্তর প্রদেশের বালিয়া জেলার ইব্রাহিমপাত্তি গ্রামের এক কৃষক পরিবারে। জনতা দলের সভাপতি পদে তিনি আসীন ছিলেন ১৯৭৭ থেকে ১৯৮৮ পর্যন্ত। ছাত্র জীবনেই রাজনীতিতে তাঁর হাতেখড়ি। এক বৈপ্লবিক চিন্তাধারা ও মতবাদের 'তরুণ তুর্কি' হিসেবেই তিনি তখন খ্যাত ছিলেন। এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৫০-৫১) থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর পঠনপাঠনের পর ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী বিশ্বনাথ প্রতাপ সিং

    শ্রী বিশ্বনাথ প্রতাপ সিং

    ১৯৮৯, ২ ডিসেম্বর থেকে ১৯৯০, ১০ নভেম্বর

    শ্রী বিশ্বনাথ প্রতাপ সিং-এর জন্ম ১৯৩১-এর ২৫ জুন এলাহাবাদে। রাজা বাহাদুর রামগোপাল সিং-এর পুত্র বিশ্বনাথ প্রতাপের শিক্ষা এলাহাবাদ ও পুণে বিশ্ববিদ্যালয়ে। শ্রীমতী সীতা কুমারীর সঙ্গে তাঁর বিবাহ হয় ১৯৫৫-র ২৫ জুন। বিশ্বনাথ প্রতাপ ছিলেন দুই পুত্রের জনক। বিশ্বনাথ প্রতাপ সিং ছিলেন এক বিদগ্ধ ব্যক্তিত্বের অধিকারী। এলাহাবাদের কোরাওঁ-তে গোপাল বিদ্যালয়ের (ইন্টারমিডিয়েট কলেজ) তিনি ছিলেন ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী রাজীব গান্ধী

    শ্রী রাজীব গান্ধী

    ১৯৮৪, ৩১ অক্টোবর থেকে ১৯৮৯, ২ ডিসেম্বর

    মাত্র ৪০ বছর বয়সেই দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন শ্রী রাজীব গান্ধী। তিনি ছিলেন দেশের তরুণতম প্রধানমন্ত্রী। শুধু তাই নয়, বিশ্বের অন্যান্য দেশের নির্বাচিত সরকারের তরুণতম প্রধানমন্ত্রীদের মধ্যে তিনি ছিলেন একজন। তাঁর থেকে মাত্র আট বছর বেশি বয়সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন তাঁর মা শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধী ১৯৬৬ সালে। রাজীবের মাতামহ ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধী

    শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধী

    ১৯৮০, ১৪ জানুয়ারি থেকে ১৯৮৪, ৩১ অক্টোবর

    শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম ১৯১৭ সালের ১৯ নভেম্বর এক বিশিষ্ট পরিবারে। পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর কন্যা ইন্দিরার ছাত্র জীবন কেটেছে স্যুইজারল্যান্ডের বেকস্-এ ইকোলে নোভেল, জেনেভার ইকোলে ইন্টারন্যাশনাল, পুণে ও বোম্বাই-এর পিউপিল্স ওন স্কুল, ব্রিস্টলের ব্যাডমিন্টন স্কুল, শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী এবং অক্সফোর্ডের সামারভিল কলেজে। বিশ্বের বহু বিশ্ববিদ্যালয়ই তাঁকে সাম্মানিক ডক্টরেট ডিগ্রিতে সম্মানিত করেছে। তাঁর উজ্জ্বল ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী চরণ সিং

    শ্রী চরণ সিং

    ১৯৭৯, ২৮ জুলাই থেকে ১৯৮০, ১৪ জানুয়ারি

    উত্তর প্রদেশের মীরাট জেলার নুরপুর গ্রামের এক মধ্যবিত্ত কৃষক পরিবারে শ্রী চরণ সিং-এর জন্ম ১৯০২ সালে। তিনি বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন ১৯২৩ সালে এবং স্নাতকোত্তর উপাধি লাভ করেন ১৯২৫ সালে আগ্রা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। আইনেরও স্নাতক হিসেবে তিনি গাজিয়াবাদে আইন ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত হন। পরে, ১৯২৯ সালে তিনি মীরাটে ফিরে আসেন এবং ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী মোরারজি দেশাই

    শ্রী মোরারজি দেশাই

    ১৯৭৭, ২৪ মার্চ থেকে ১৯৭৯, ২৮ জুলাই

    শ্রী মোরারজি দেশাইয়ের জন্ম ১৮৯৬ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি গুজরাটের ভাদেলি গ্রামে। গ্রামটি বর্তমানে বালসার জেলার অন্তর্ভুক্ত। তাঁর পিতা ছিলেন কঠোর শৃঙ্খলাপরায়ণ একজন স্কুল শিক্ষক। শৈশব থেকেই পিতার কাছে কঠোর পরিশ্রম এবং সত্যবাদিতার পাঠ নিয়েছিলেন তরুণ মোরারজি। সেন্ট বাসার হাইস্কুল থেকে তিনি ম্যাট্রিকুলেশন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। ১৯১৮ সালে তৎকালীন বোম্বাই প্রদেশের উইলসন সিভিল ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধী

    শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধী

    ১৯৬৬, ২৪ জানুয়ারি থেকে ১৯৭৭, ২৪ মার্চ

    শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম ১৯১৭ সালের ১৯ নভেম্বর এক বিশিষ্ট পরিবারে। পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর কন্যা ইন্দিরার ছাত্র জীবন কেটেছে স্যুইজারল্যান্ডের বেকস্-এ ইকোলে নোভেল, জেনেভার ইকোলে ইন্টারন্যাশনাল, পুণে ও বোম্বাই-এর পিউপিল্স ওন স্কুল, ব্রিস্টলের ব্যাডমিন্টন স্কুল, শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী এবং অক্সফোর্ডের সামারভিল কলেজে। বিশ্বের বহু বিশ্ববিদ্যালয়ই তাঁকে সাম্মানিক ডক্টরেট ডিগ্রিতে সম্মানিত করেছে। তাঁর উজ্জ্বল ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী গুলজারি লাল নন্দ

    শ্রী গুলজারি লাল নন্দ

    ১৯৬৬, ১১ জানুয়ারি থেকে ১৯৬৬, ২৪ জানুয়ারি

    শ্রী গুলজারি লাল নন্দের জন্ম পাঞ্জাবের শিয়ালকোটে ১৮৯৮ সালের ৪ জুলাই। তাঁর শিক্ষাজীবন অতিবাহিত হয় লাহোর, আগ্রা ও এলাহাবাদে। এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ স্কলার হিসেবে তিনি কাজ করেন শ্রম সমস্যার ওপর (১৯২০-২১) এবং বোম্বাইয়ের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে (ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি) অর্থনীতির অধ্যাপক পদে যোগ দেন। আবার ঐ বছরই জড়িয়ে পড়েন অসহযোগ আন্দোলনের সঙ্গে। ১৯২২ সালে ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রী

    শ্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রী

    ১৯৬৪, ৯ জুন থেকে ১৯৬৬, ১১ জানুয়ারি

    উত্তর প্রদেশের বারাণসী থেকে সাত মাইল দূরে মোঘলসরাই রেল স্টেশন সন্নিহিত এক ছোট্ট শহরে শ্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রীর জন্ম 1904 সালের 2 অক্টোবর। তাঁর পিতা ছিলেন একজন স্কুল শিক্ষক। লাল বাহাদুর শাস্ত্রীর বয়স যখন মাত্র দেড় বছর তখনই তাঁর বাবা মারা যান। তাঁর মায়ের বয়স তখন মাত্র ২০। তিনি তিন ছেলেমেয়েকে নিয়ে ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী গুলজারি লাল নন্দ

    শ্রী গুলজারি লাল নন্দ

    ১৯৬৪, ২৭ মে থেকে ১৯৬৪, ৯ জুন

    শ্রী গুলজারি লাল নন্দের জন্ম পাঞ্জাবের শিয়ালকোটে ১৮৯৮ সালের ৪ জুলাই। তাঁর শিক্ষাজীবন অতিবাহিত হয় লাহোর, আগ্রা ও এলাহাবাদে। এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ স্কলার হিসেবে তিনি কাজ করেন শ্রম সমস্যার ওপর (১৯২০-২১) এবং বোম্বাইয়ের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে (ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি) অর্থনীতির অধ্যাপক পদে যোগ দেন। আবার ঐ বছরই জড়িয়ে পড়েন অসহযোগ আন্দোলনের সঙ্গে। ১৯২২ সালে ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক
  • শ্রী জওহরলাল নেহরু

    শ্রী জওহরলাল নেহরু

    ১৯৪৭, ১৫ আগস্ট থেকে ১৯৬৪, ২৭ মে

    পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর জন্ম ১৮৮৯ সালের ১৪ নভেম্বর এলাহাবাদে। তাঁর প্রথম শিক্ষার পাঠ বাড়িতেই গৃহ শিক্ষদের কাছে। পনেরো বছর বয়সে তাঁর ইংল্যান্ড যাত্রা। হ্যারো-তে দু'বছর থাকার পর তিনি কেম্ব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলেন প্রকৃতি বিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনার জন্য। এরপর তিনি ব্যারিস্টারির কাজ শুরু করেন। ১৯১২ সালে দেশে ফিরেই তিনি সরাসরি রাজনীতির সংস্পর্শে চলে ...

    আরও সংরক্ষণাগার লিঙ্ক