পিএমইন্ডিয়া

সাম্প্রতিক সংবাদ

বিষয়টিকে সরাসরি পিআইবি থেকে নেওয়া হয়েছে

মুসৌরিরলাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমিতে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের সামনেভাষণদিলেন প্রধানমন্ত্রী

মুসৌরিরলাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমিতে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের সামনেভাষণদিলেন প্রধানমন্ত্রী

মুসৌরিরলাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমিতে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের সামনেভাষণদিলেন প্রধানমন্ত্রী

মুসৌরিরলাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমিতে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের সামনেভাষণদিলেন প্রধানমন্ত্রী

দু’দিনেরসফরে মুসৌরির লাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন(এলবিএসএনএএ)-এ গিয়ে ৯২তম ফাউন্ডেশন কোর্সের ৩৬০ জন আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদেরকাছে শুক্রবারভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী। এই দিনটি ছিল তাঁর সফরেরদ্বিতীয় দিন। ১৭টি সিভিল সার্ভিস এবং তিনটি রয়্যাল ভুটান সিভিল সার্ভিসেরআধিকারিক-প্রশিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন এই অনুষ্ঠানে। 

প্রধানমন্ত্রীরভাষণের আগে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীরা “আমি সিভিল সার্ভিসে কেন যোগ দিলাম” – এইবিষয়টির ওপর তাঁদের লেখা নিজের নিজের প্রবন্ধ উপস্থাপিত করেন এই অনুষ্ঠানে। শিক্ষা,আবাসন, সুসংহত পরিবহণ ব্যবস্থা, অপুষ্টি, কঠিন বর্জ্যের ব্যবস্থাপনা, দক্ষতাবিকাশ, ডিজিটাল পদ্ধতিতে লেনদেন, এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত এবং আগামী ২০২২ সালের মধ্যেএক ‘নতুন ভারত’ গঠন-এর বিষয়গুলিকে বেছে নিয়ে তাঁরা তাঁদের বক্তব্য তুলে ধরেন এইউপস্থাপনার মাধ্যমে। ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’ সম্পর্কে তাঁদের নিজের নিজেরচিন্তাভাবনার কথাও তাঁরা ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। 

আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদেরউপস্থাপনার জন্য তাঁদের বিশেষ প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি তাঁর ভাষণে বলেন,তরুণ ও নবীন আধিকারিকদের এই উপস্থাপনাগুলি সম্পর্কে গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করারজন্যতিনি ইতিমধ্যেই নির্দেশ দিয়েছেনকেন্দ্রীয় সরকারের পদস্থ আধিকারিকদের। ফাউন্ডেশনকোর্স শেষ হওয়ার আগেই পদস্থ আধিকারিকরা যাতে সে সম্পর্কে তাঁদের মতামত ওচিন্তাভাবনার কথা আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরেন, সেজন্যওপ্রধানমন্ত্রী তাঁদের বিশেষভাবে আর্জি জানান। 

প্রশিক্ষণশেষে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীরা কিভাবে তাঁদের কর্মজীবনের জন্য প্রস্তুত হবেন,সেজন্য কিছু কিছু পরামর্শও দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, জনসাধারণের সমস্যানিরসনে তাঁদের অবশ্যই সজাগ ও যত্নবান হতে হবে। শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং পঠন-পাঠনেরমাধ্যমে তাঁরা নিশ্চিতভাবেই ভুল পথে পা রাখবেন না বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তুদলবদ্ধভাবে কাজ করার সময় সাধারণ মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ এবং সুসম্পর্ক বজায় রাখারমাধ্যমে কর্মজীবনে সফল হওয়ার সুযোগ লাভ করবেন তাঁরা। 

জন-অংশীদারিত্বএবং সাধারণ মানুষের সক্রিয় অংশগ্রহণের গুরুত্বের বিষয়টি তাঁর ভাষণে তুলে ধরেন শ্রীনরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, নীতিগত উদ্যোগগুলির সফল রূপায়ণের ক্ষেত্রে তা একান্তজরুরি। 

শ্রী মোদীবলেন, প্রাক্‌-স্বাধীনতাকালে সিভিল সার্ভিসের কাজ ছিল ব্রিটিশ সরকারকে সর্বতোভাবেরক্ষা করা। কিন্তু এখন সিভিল সার্ভিসের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হল সাধারণ মানুষেরকল্যাণ ও সমৃদ্ধি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সিভিল সার্ভিসের আধিকারিকরা যদি এই লক্ষ্যও উদ্দেশ্যকে অনুসরণ করে চলেন, তাহলে প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষ এবং জনসাধারণের মধ্যে দূরত্বদূর করা যাবে। 

কাজের প্রতিঅনাগ্রহ এবং দলবদ্ধভাবে কাজ করার ক্ষেত্রে অনীহার ভাব মুসৌরিতে এই প্রাথমিকপ্রশিক্ষণের সময়েই কাটিয়ে ওঠা সম্ভব। ফাউন্ডেশন কোর্সের সময়আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক কাজের খুঁটিনাটি বিষয়গুলি সম্পর্কে ভালোভাবেইঅবহিত হয়েছেন বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি তাঁদের দলবদ্ধভাবে কাজ করা এবংনেতৃত্ব দেওয়া –এই দুটি বিষয়কে ভালোভাবে রপ্ত করে তাঁদের কর্মজীবনে তা প্রয়োগ করারপরামর্শ দেন। 

শ্রী মোদীবলেন, সামাজিক আন্দোলন গণতান্ত্রিক পরিবর্তন সম্ভব করে তুলতে পারে। সিভিলসার্ভিসের এক্ষেত্রে এক গুরুত্বপূর্ণ অনুঘটকের ভূমিকা রয়েছে। আগেরদিন একসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের ‘বৈষ্ণব জন’ভক্তি সঙ্গীতপরিবেশনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন যে গানের অন্তর্নিহিত ভাব ও চিন্তার কথা অনুভবও উপলব্ধি করা উচিৎ আধিকারিকদের। সরকারি আধিকারিকদের এইভাবে ‘বৈষ্ণব জন’ হয়ে ওঠারপরামর্শ দেন তিনি। 

প্রধানমন্ত্রীবলেন, সরকারি আধিকারিকদের সবচেয়ে বড় শক্তি হল তাঁরা ব্যক্তি হিসেবে নিজেদের নয়,সরকারি কাজকর্মকেই সকলের সামনে তুলে ধরতে সঙ্কল্পবদ্ধ। অশোক চক্রের চতুর্থ সিংহেরসঙ্গে তিনি তুলনা করেন সরকারি আধিকারিকদের। তিনি বলেন, এই সিংহটি অদৃশ্য বাঅন্তরালেই থেকে যায় কিন্তু তা সত্ত্বেওআমরা তার উপস্থিতি সর্বদাই অনুভব করি। 

শ্রী মোদীবলেন, সফর বা ভ্রমণ হল এক বিশেষ ভারতীয় ঐতিহ্য। কারণ, এর মাধ্যমে জনসাধারণের সঙ্গেআলাপচারিতায় মিলিত হওয়া যায় যা নিঃসন্দেহে এক বিশেষ শিক্ষণীয় অভিজ্ঞতা। বিভিন্ন পদেনিয়োগের পর অফিসের বাইরে গিয়েও সরকারি সফরকালে অভিজ্ঞতা সঞ্চয়ের তিনি পরামর্শ দেনআধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের। 

প্রধানমন্ত্রীবলেন, আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীরা তাঁদের কর্মজীবন গড়ে তুলতে বিশেষভাবে সজাগ ও সচেতন।এই কারণেই চাকরির পরীক্ষায় সাফল্যের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়ে তাঁরা এই অ্যাকাডেমিতে আজউপস্থিত রয়েছেন। দেশবাসীকে সেবা করার জন্য তাঁদের এখন ব্রত উদযাপনের মানসিকতা গড়েতুলতে হবে। ভবিষ্যতে তাঁরা যখন অফিসের বাইরে গিয়ে বাস্তবের মাটিতে দাঁড়িয়ে কাজকরার সুযোগ পাবেন, তখনই জীবনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে তাঁরা অনুভব ও উপলব্ধি করতেপারবেন। 

এদিন সকালেঅ্যাকাডেমির লন-এ আধিকারিক-প্রশিক্ষার্থীদের যোগচর্চার সময়েও তাঁদের সঙ্গে যোগ দেনশ্রী নরেন্দ্র মোদী। 

অ্যাকাডেমিরএকটি নতুন হস্টেল ভবনের শিলান্যাস উপলক্ষে এক প্রস্তর ফলকের আবরণ উন্মোচন করেনতিনি। এছাড়াও, শরীরচর্চার জন্য ২০০ মিটার দীর্ঘ এক সিন্থেটিক রাস্তা তৈরিপ্রকল্পেরও সূচনা করেন তিনি। 

অ্যাকাডেমিরবালওয়াড়ি কেন্দ্রে গিয়ে সেখানকার শিশুদের সঙ্গেও মিলিত হন প্রধানমন্ত্রী। অ্যাকাডেমিরজিমন্যাশিয়াম এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাগুলিও তিনি ঘুরে দেখেন।

 

PG/SKD/DM